সারাদেশের ২৩৪ পৌরসভায় ভোটগ্রহণ চলছে

0


1451445614

স্টাফ রিপোর্টার, সময় সংবাদ বিডি- 

ঢাকাঃসারাদেশের ২৩৪ পৌরসভায় দলীয় প্রতীকে প্রথম ভোট গ্রহণ শুরু হয়েছে। বুধবার  সকাল ৮টায় ভোটগ্রহণ শুরু হয়। যা বিরতিহীনভাবে চলবে বিকাল ৪টা পর্যন্ত।

পৌরসভাগুলোর ৩ হাজার ৫৫২টি ভোট কেন্দ্রে একযোগে উৎসবমুখর পরিবেশে ভোটগ্রহণ চলছে। ৬৬ হাজার ৭৬৮ জন কর্মকর্তা ভোটগ্রহণে দায়িত্ব পালন করছেন।

এবার ৭০ লাখ ৯৯ হাজার ১৪৪ জন ভোটার তাদের ভোটাধিকার প্রয়োগের সুযোগ পাচ্ছেন। তার মধ্যে পুরুষ ভোটার ৩৫ লাখ ৫২ হাজার ২৮৪ জন এবং নারী ভোটার ৩৫ লাখ ৪৬ হাজার ৮৬০ জন।

ইসি’র উপ-সচিব সামসুল আলম জানিয়েছেন, নির্বাচনে ২০টি দল প্রার্থী দিয়েছে। এতে মেয়র পদে মোট প্রতিদ্বন্দ্বী প্রার্থী ৯৪৫ জন। তাদের মধ্যে স্বতন্ত্র প্রার্থী রয়েছেন ২৮৫ জন।

দলগুলোর প্রতিদ্বন্দ্বী মেয়র প্রার্থীদের মধ্যে আওয়ামী লীগের ২৩৪ জন, বিএনপির ২২৩ জন, জাতীয় পার্টির ৭৪ জন, বাংলাদেশের ওয়ার্কার্স পার্টির ৮ জন, লিবারেল ডেমোক্রেটিক পার্টির ১ জন, জেপির ৬ জন, বাংলাদেশের কমিউনিস্ট পার্টির ৪ জন, বিকল্পধারা বাংলাদেশের ১ জন, প্রগতিশীল গণতান্ত্রিক দলের ১ জন, বাংলাদেশ তরিকত ফেডারেশনের ১ জন প্রার্থী রয়েছেন।

এছাড়া বাংলাদেশ খেলাফত মজলিশের ৪ জন, জাতীয় সমাজতান্ত্রিক দলের (জাসদ) ২১ জন, বাংলাদেশ সমাজতান্ত্রিক দলের (বাসদ) ১ জন, ন্যাশনাল পিপলস পার্টির ১৭ জন, ন্যাশনাল আওয়ামী পার্টির (ন্যাপ) ১ জন, ইসলামী ঐক্যজোটের ১ জন, ইসলামী আন্দোলন বাংলাদেশের ৫৭ জন, বাংলাদেশ ইসলামী ফ্রন্টের ৩ জন, বাংলাদেশর বিপ্লবী ওয়ার্কার্স পার্টির ১ জন ও খেলাফত মজলিশের ১ জন প্রার্থী নির্বাচনী মাঠে রয়েছেন।

তাদের মধ্যে ভোটের মাঠে বিনা প্রতিদ্বন্দ্বিতায় নির্বাচিত আওয়ামী লীগের ৭ প্রার্থী থাকছেন না।

মোট মেয়র প্রার্থীর মধ্যে নারী প্রার্থী রয়েছেন ১৫ জন। নারী প্রার্থীদের মধ্যে আওয়ামী লীগের ৬ জন, বিএনপির ১ জন, ন্যাশনাল পিপলস পার্টির ৪ জন ও স্বতন্ত্র প্রার্থী রয়েছেন ৪ জন।

দীর্ঘ সাত বছর পর এবার ভোট চলছে নৌকা-ধানের শীষ প্রতীকে। বিএনপি ও আওয়ামী লীগের এ ভোটের লড়াই জমে উঠেছে। ইসি’র তথ্য থেকে জানা গেছে, ২৩৪টি পৌরসভার মধ্যে ২২২টিতে আওয়ামী লীগ ও বিএনপির প্রার্থীদের মুখোমুখি লড়াই হচ্ছে।

এবারের নির্বাচনে সংরক্ষিত নারী কাউন্সিলর পদে ২ হাজার ৪৮০ এবং সাধারণ কাউন্সিলর পদে ৮ হাজার ৭৪৬ জন প্রার্থী প্রতিদ্বন্দ্বিতা করছেন। তাদের মধ্যে সংরক্ষিত নারী কাউন্সিলর পদে ৪০ জন এবং সাধারণ কাউন্সিলর পদে ৯৪ জন প্রার্থী বিনা প্রতিদ্বন্দ্বিতায় নির্বাচিত হয়েছেন। তাদেরও ভোটের প্রতিযোগিতায় থাকতে হচ্ছে না।

নির্বাচনে প্রায় সোয়া লাখ ফোর্স মোতায়েন করেছে ইসি।

একটি উত্তর ত্যাগ

Please enter your comment!
Please enter your name here