স্বাধীনতা মানে বঙ্গবন্ধু, বাংলাদেশ মানে বঙ্গবন্ধু

0


ডেস্ক নিউজ, সময় সংবাদ বিডি-
ঢাকাঃ ত্রিশ লক্ষ শহিদ খামা-খা জীবন দেয়নি। দেশকে স্বাধীন করতে তারা জীবন দিয়েছে। আর স্বাধীনতা মানে বঙ্গবন্ধু, বাংলাদেশ মানে বঙ্গবন্ধু। তাই মুক্তিযুদ্ধের চেতনাবিরোধী ও সাম্প্রদায়িক শক্তিকে বঙ্গবন্ধুর বাংলাদেশে জায়গা দেওয়া হবেনা বলেছেন, বঙ্গবন্ধুর দৌহিত্র ও বাংলাদেশ আওয়ামী যুবলীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক ব্যারিষ্টার শেখ ফজলে নাঈম।

মঙ্গলবার ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের দোয়েল চত্বরে এক মানববন্ধনে যুবলীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক এ হুঁশিয়ারি দেন। জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের ভাস্কর্য সম্পর্কে ধৃষ্টতাপূর্ণ বক্তব্যের প্রতিবাদ এবং মৌলবাদ-সাম্প্রদায়িকতার বিরুদ্ধে একাত্তরের ঘাতক-দালাল নির্মূল কমিটিসহ ৬০টি সামাজিক-সাংস্কৃতিক ও পেশাজীবী সংগঠন এই মানববন্ধন কর্মসূচির আয়োজন করে। যেখানে যুবলীগের চেয়ারম্যান শেখ ফজলে শামস্‌সহ বিপুল সংখ্যক নেতাকর্মীও অংশ নিয়েছেন।

এসময় শেখ ফজলে শামস্‌ বলেন, বাংলাদেশে একটা কুচক্রীমহল সৃষ্টি করে ফায়দা লোটা, এটা বারবার হবে না। এবারই আমরা এটা ফাইনাল করব। চোরের দশ দিন, গেরস্থের এক দিন। যুবলীগ নেতাকর্মীরা সজাগ ও সোচ্চার থাকবেন। আমরা এদের দমন করব ইনশাআল্লাহ।

তদন্তের মাধ্যমে সাম্প্রদায়িক শক্তিকে চিহ্নিত করার জন্য প্রশাসনের প্রতি আহ্বান জানিয়ে তিনি বলেন, মৌলবাদী ও সাম্প্রদায়িক শক্তির কোথা থেকে টাকা আসছে, কী তাদের এজেন্ডা- এসব ব্যাপারে প্রশাসনিক তদন্ত হওয়া উচিত। প্রশাসনের তদন্তের মাধ্যমে আসল ষড়যন্ত্রকারী ও তাদের মদদদাতাদের চিহ্নিত করতে হবে এবং এদেশের মাটিতেই তাদের শাস্তি দিতে হবে। তাদের একেবারে নির্মূল করে দিতে হবে। তারা যেন বারবার স্বাধীনতা, মুক্তিযুদ্ধের চেতনা ও দেশপ্রেমকে প্রশ্নবিদ্ধ করতে না পারে।

মানববন্ধনে আরও উপস্থিত ছিলেন যুবলীগের প্রেসিডিয়াম সদস্য অ্যাডভোকেট মামুনুর রশিদ, মুজিবর রহমান চৌধুরী নিক্সন এমপি, মোয়াজ্জেম হোসেন, প্রকৌশলী মৃনাল কান্তি জোয়াদ্দার, তাজ উদ্দিন আহমেদ, আনায়ার হোসেন, যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক বিশ্বাস মতিউর রহমান বাদশা, সাংগঠনিক সম্পাদক ডা. হেলাল উদ্দিন, সাইফুর রহমান সোহাগ, জহির উদ্দিন খসরু, সোহেল পারভেজ, মশিউর রহমান চপল, অ্যাডভোকেট শামীম আল সাইফুল সোহাগ, ড. রেজাউল কবির, প্রচার সম্পাদক জয়দেব নন্দী, ঢাকা মহানগর উত্তরের ভারপ্রাপ্ত সভাপতি জাকির হোসেন বাবুল, দক্ষিণের ভারপ্রাপ্ত সভাপতি মাইনউদ্দিন রানা, উত্তরের সাধারণ সম্পাদক ইসমাইল হোসেন, দক্ষিণের ভারপ্রাপ্ত সাধারণ সম্পাদক এইচএম রেজাউল করিম রেজা, ১৯ নং ওয়ার্ড যুবলীগের সিনিয়র সহ-সভাপতি শরিফ আহমেদ কনকসহ বনানী থানা যুবলীগের নেতাকর্মীরা।

একটি উত্তর ত্যাগ

Please enter your comment!
Please enter your name here